স্বপ্নপূরণের পথে মাতারবাড়ী

স্বপ্নপূরণের পথে মাতারবাড়ী

বিটিবি নিউজ ডেস্ক: জ্বালানি কেন্দ্র, অর্থনৈতিক জোন, শিল্পায়ন, গভীর সমুদ্র বন্দরসহ একগুচ্ছ মেগাপ্রকল্প বাস্তবায়নকে ঘিরে বদলে যাচ্ছে মহেশখালী পাহাড়ি দ্বীপ। দেশের বহু প্রতীক্ষিত স্বপ্নপূরণের পথে ধাপে ধাপে এগিয়ে চলেছে মাতারবাড়ী গভীর সমুদ্রবন্দর। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে পানামার পতাকাবাহী জাহাজ ‘এমভি ভেনাস ট্রায়াম্প’ প্রথম ভিড়লো অনায়াসে। মাতারবাড়ী কয়লাভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ প্রকল্পের নির্মাণ সামগ্রী ও যন্ত্রপাতি নিয়ে ইন্দোনেশিয়া থেকে আসে জাহাজটি। 

মাতারবাড়ী কয়লাভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য নির্মিত ও নির্ধারিত জেটিতে নোঙর ফেলে ভেনাস ট্রায়াম্প। অবশ্য ইতোপূর্বে মাতারবাড়ীতে প্রকল্পের কাজে অন্য জাহাজও আসে। গতকাল ভেনাস ট্রায়াম্প ভিড়ার মধ্যদিয়ে মাতারবাড়ী বাংলাদেশের শুধুই নয়; দক্ষিণ এশিয়ায় এবং পোর্ট-শিপিং মানচিত্রে ও ইতিহাসের অংশ হিসেবে তার প্রাথমিক পথচলা শুরু করলো। যা এ প্রকল্পে একটি মাইলফলক অগ্রগতি হিসেবে দেখা হচ্ছে। বহুমুখী সুবিধা সম্পন্ন মাতারবাড়ী গভীর সমুদ্র বন্দরের নির্মাণকাজ এগিয়ে চলেছে।
এদিকে মাতারবাড়ী গভীর সমুদ্রবন্দর মেগাপ্রকল্প বাস্তবায়ন তদারককারী চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সদস্য (প্রশাসন ও পরিকল্পনা) জাফর আলম গতকাল দৈনিক ইনকিলাবকে জানান, মাতারবাড়ীতে আরও চমক অপেক্ষা করছে। শিগগিরই সেখানে চ্যানেল দিয়ে নোঙর ফেলবে ১৬ মিটার ড্রাফটের বৃহৎ জাহাজ। তাছাড়া জোয়ার-ভাটার নির্ভরতা ছাড়াই গভীর চ্যানেলে জাহাজ আসা-যাওয়া ও বার্থিং করতে (ভিড়তে) সক্ষম হবে।
পানামার জাহাজ ‘এমভি ভেনাস ট্রায়াম্প’ ভিড়ার জন্য গতকাল জোয়ার-ভাটার সময়ের জন্য বঙ্গোপসাগরে বহির্নোঙরে অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে থাকতে হয়নি। বহিনোঙর থেকে সরাসরি অনায়াসে এবং সফলভাবে চ্যানেল অতিক্রম করে মাতারবাড়ী নির্মাণাধীন গভীর সমুদ্র বন্দরের জেটিতে ভিড়েছে জাহাজটি। তখন দেশি-বিদেশি নির্মাণ প্রকৌশলী, কর্মকর্তা, শ্রমিক ও স্থানীয় জনসাধারণ আনন্দ প্রকাশ করেন।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, এমভি ভেনাস ট্রায়াম্প জাহাজযোগে ৩১৩ প্যাকেজে ৭৩৬ মেট্রিক টন স্টিলের নির্মাণ সামগ্রী, স্ট্রাকচার, যান্ত্রিক সরঞ্জাম আনা হয়েছে। সেগুলো খালাসের প্রক্রিয়া চলছে। ৪ দশমিক ৪ মিটার ড্রাফটের জাহাজটির দৈর্ঘ্য ১২০ মিটার। জাহাজবাহী এসব সরঞ্জাম মাতারবাড়ী কয়লাভিত্তিক আলট্রাসুপার তাপবিদ্যুৎ প্রকল্পে নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত হবে। এর মধ্যে রয়েছে বীম, কলাম, গার্ডার, টাওয়ার ইত্যাদি। জাহাজটির লোকাল এজেন্ট অ্যানসাইন্ট স্টিমশিপ কোম্পানি লি.।