দেশে এই প্রথম ১৪ দিন ব্যাপী ভার্চুয়াল বিজয় দিবস পালন

বিশেষ প্রতিনিধি: দেশে এই প্রথম ১৪ দিন ব্যাপী ভারচুয়ার বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে। কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাস মহামারী সময় যখন শিক্ষা কার্যক্রমের মুখ প্রায় থুবড়ে পড়েছে। ঠিক তখনি কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী অফিসার শুভাশিষ ঘোষ এর পরিকল্পনায় ও মহৎ উদ্যোগে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা পরিবার এর তত্ত্বধানে ‘কুমিল্লা সদর দক্ষিণ অনলাইন প্রাথমিক বিদ্যালয়’ পরিচালিত হয়েছে। গত ১ ডিসেম্বর ২০২০ ইং তারিখে এটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে ”কুমিল্লা সদর দক্ষিণ অনলাইন প্রাথমিক বিদ্যালয়” (Facebook Group) যেন এক আলোর ফেরিওয়ালা রুপে আর্বিভূত হয়েছে।

দেশে এই প্রথম ১৪ দিন ব্যাপী ভার্চুয়াল বিজয় দিবস পালন

প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ পর্যন্ত উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানসহ প্রতিদিন সকাল ১০:৩০ মিনিট থেকে ১:৩০ মিনিট পর্যন্ত সরাসরি ৩৭টি বিষয়ভিত্তিক অলনাইন ক্লাস পরিচালনা করা হয়। যার মাধ্যমে উপজেলার ৯০টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, কিন্ডার গার্টেন ও এবতেদায়ী মাদ্রাসার কয়েক হাজার শিক্ষার্থীর শ্রেণি কার্যক্রমে সহায়ক ভূমিকা পালন করেছে বলে বিটিবি নিউজের অনুসন্ধানের আয়নায় উঠে এসেছে। 
অনুসন্ধানে আরো জানা গেছে, বিজয়ের মাস ডিসেম্বরে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশনা মোতাবেক ১৭ ডিসেম্বর থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত উপজেলার নির্বাচিত ৩৩টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অংশগ্রহনে ১৪দিন ব্যাপী ভার্চুয়াল দিবস পালনে এক ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। গত ১৭ ডিসেম্বর থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিদ্যালয়ের শিশু, শিক্ষার্থী, শিক্ষক, অভিভাবক, এস.এম. সি/ পি.টি এর সদস্যবৃন্দ ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের অংশগ্রহণের মাধ্যমে প্রতিদিন ৩টি করে স্কুল ”ভার্চুয়াল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান” প্রতিদিন সকাল ১০:৩০ মিনিট থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত সরাসরি সম্প্রচার করা হয়েছে। বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে মাসব্যাপী এমন ”ভার্চুয়াল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান” বাংলাদেশে এই প্রথম। এটি বাংলাদেশের ইতিহাসে একটি বিরল ঘটনা। 
মাসব্যাপী এই ”ভার্চুয়াল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান”-এ প্রায় ২৫ জন মুক্তিযুদ্ধা তাঁদের মুক্তি সংগ্রামের ইতিহাস ও অংশগ্রহণের চিত্র ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের সামনে খুবই সুন্দর ভাবে তুলে ধরেছেন। ওই কয়েক দিনে সামাজিক দুরত্ব মেনে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে সীমিত আকারে বিদ্যালয়ের শ্রেণি কক্ষে আয়োজিত বিজয় দিবসের বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালা ফেসগ্রুপ পেজে লাইফ সম্প্রচার করা হয়।  মোট ১৪দিনে এই সম্প্রচারে প্রায় ৯০০ ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে বিজয় দিবসের গান, আবৃত্তি, নাচ, কৌতুক, অভিনয় সহ মনোমুগ্ধকর জমকালো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত। এতে করে ১৪ দিনে প্রায় অর্ধলক্ষঅধিক ভিউয়ার অনুষ্ঠানটি উপভোগ করেছেন। সেই সাথে ওই ভিউয়ারদের মধ্যে অনেকেই এই ব্যতিক্রমী আয়োজন দেখে কমেন্ট মন্তবের মাধ্যমে ভূয়সী প্রশসংসা করা সহ নিজ নিজ ফেসবুকে ওই অনুষ্ঠানটি শেয়ার করেছেন। শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি বিদ্যালয়ের প্রায় ২০০ জন শিক্ষক এই সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহন করেন। সর্বমোট ২৮ ঘন্টা চলেছে মাসব্যাপী এই ”ভার্চুয়াল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান”। এই সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সরাসরি Facebook Group-এ সম্প্রচার হওয়ায় উপজেলার সকল ক্ষুদে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকগন মহান বিজয় দিবসের ইতিহাস ও ঐতিহ্য সম্পর্কে তাঁদের জ্ঞানের পরিধি আরো গভীর হয়েছে বলে অনেকে মত প্রকাশ করেন। সরাসরি প্রচারিত ওই অনুষ্ঠানগুলোর প্রতিটির প্রায় ১ লাখ ভিউয়ার, ৫২০ এর কাছাকাছি শেয়ার এবং ১,২০০ লাইক হয়েছে বলেও জানা গেছে। এতে ওই উপজেলার পাশাপাশি সারা দেশের শির্ক্ষার্থীরা উপকৃত হবে বলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ আশা প্রকাশ করছেন। ”কুমিল্লা সদর দক্ষিণ অনলাইন প্রাথমিক বিদ্যালয়” (Facebook Group)-এ  প্রচারিত সকল শ্রেণিকার্যক্রম এবং বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে মাসব্যাপী ”ভার্চুয়াল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান”-এর সার্বিক মনিটরিং এবং গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শের দায়িত্বে ছিলেন কুমিল্লা সদর দক্ষিণ, উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের ইন্সট্রাক্টর মোঃ আব্দুল মতিনসহ উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার প্রমুখ।