মান্দায় করোনা প্রতিরোধ সচেতনতায় মাস্ক ও সাবান বিতরণ করেন আ’লীগ নেতা আব্দুল খালেক

মান্দায় করোনা প্রতিরোধ সচেতনতায় মাস্ক ও সাবান বিতরণ করেন আ’লীগ নেতা আব্দুল খালেক

মান্দা সংবাদদাতা: সারা বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস তৈরি করেছে দূর্যোগ। বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা ঘোষিত এ মহামারি হয়ে ওঠেছে অপ্রতিরোধ্য। এটি খুব দ্রুততর গতিতে একজন থেকে আরেকজনের দেহে ছড়িয়ে পড়ছে। এ ভাইরাসের সবচেয়ে ভয়ংকর দিক হলো, এটি বার বার মিউটেশন অর্থাৎ জিনগত গঠন নিজেই পাল্টে ফেলছে। এ কারণেই কোভিট-১৯ ভাইরাসের প্রতিষেধক আবিষ্কার করা খুব কঠিন হয়ে পড়েছে। করোনা ভাইরাস এটা একটা যুদ্ধ। ভয়ানক একটা ছোঁয়াচে ভাইরাসের বিরুদ্ধে আমাদের অঘোষিত যুদ্ধ। আমাদের যুদ্ধ কৌশল হলো আমরা এ ভাইরাসকে আমাদের শরীর স্পর্শ করতে দিবনা। তার জন্য যত ধরণের নিয়ম আছে তা পালন করে যাব৷ সাময়িক কষ্ট হলেও তা করব। করোনা পরিস্হিতি মোকাবিলায় জনবান্ধব সরকার, সরকারের জেলা-উপজেলা প্রশাসন, স্বাস্থ্য বিভাগ, সেনাবাহিনী, পুলিশ বিভাগ এবং জনপ্রতিনিধিগণ নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন।

এরই ধারাবাহিকতায় নওগাঁ মান্দার সিংগীহাট বাজারে করোনা প্রতিরোধ সচেতনতায় আজ স্থানীয় জনগনের মাঝে মাস্ক ও সাবান বিতরণ করেন ১২নং কাঁশোপাড়া ইউনিয়ন আ’লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক আব্দুল খালেক। বিশেষ প্রয়োজনের তাগিতে বাজারে আসা ব্যক্তিদের মাঝে নিজ তহবিল থেকে তিনি ২০০টি শাবান ও ২’শটি মাস্ক বিতরণ করেন। এসময় তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন, ওই ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড সভাপতি ও অবসর প্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বীর মুক্তিযোদ্ধা সুরত আলী মাষ্টার, বীরমুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম, ওয়ার্ড আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন, ইউপি সদস্য ও ৪নং ওয়ার্ড সভাপতি আবেদ আলী, ৭নং ওয়ার্ডের সভাপতি আব্দুস সামাদ, যুবলীগের ইউনিয়ন সভাপতি আমজাদ হোসেন, ছাত্রলীগের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতা টিপু, ইউনিয়ন শ্রমিক নেতা হাফিজুর রহমান, গ্রাম পুলিশ প্রমুখ উপস্থিত ছিল। আগামীকাল ১২নং কাঁশোপাড়া ইউনিয়নের কুলিহার মোড়/বাজারেও ৫’শ টি শাবান ও ৫’শটি মাস্ক বিতরণ করা হবে বলেও তিনি জানান। পর্যায়ক্রমে ১২নং কাঁশোপাড়া ইউনিয়নের সকল জায়গায় আব্দুল খালেক নিজ তহবিল থেকে শাবান ও মাস্ক বিতরণ করবেন বলেও জানা গেছে। মাস্ক ও শাবান বিতরনের পাশাপাশি সরকার ও স্বাস্থ্য বিভাগের নানা দিক নির্দেশনা ব্যাপারেও সতর্ক করেন।