মহাপ্রলয়ের ভয়!

মহাপ্রলয়ের ভয়!

বিশেষ প্রতিবেদক: সারা দুনিয়ায় বর্তমানে মানুষগুলো এমন একটি সময় অতিবাহিত করছে, যখন প্রতিটি অবস্থায় ভয় ও আতঙ্কে থাকতে হচ্ছে সবাইকে। অধিকাংশ মানুষের মরা, গুম, ধর্ষণ, জুলুম, সম্পদ লুটপাট, মর্যাদা ভূলুণ্ঠিত হওয়াসহ হরেক রকমের ভয়- চারিদিকে ঘোরপাক খাচ্ছে। একবিংশ শতাব্দিতে হু-হু করে ফিতনার দ্বার উন্মুক্ত হচ্ছে। শান্তিপ্রিয় মানুষগুলোর জীবন ক্রমেই জুলুম-অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে উঠছে। আধুনিক বিশ্বে ঘটে যাওয়া নানা ঘটনার সমারহের প্রতিবিম্বগুলো দেখলে মনে হচ্ছে এটি যেন মহাপ্রলয়ের আগাম সতর্কতা। 

অনেক মানুষই কিয়ামতকে মনে করছে অনেক দূরে। অথচ সারা ‍দুনিয়াতে ঘটে যাওয়া নানা ঘটনা ঘটে যাওয়ার কারণে মনে হচ্ছে কিয়ামত আপনার আমার চৌকাঠে এসে কড়া নাড়ছে।

কিয়ামতের মুহূর্তে এ রকমভাবেই নানা ফিতনার বাহারী ঢং সকল কিছুকে ভাসিয়ে নিয়ে যাবে।  সেই মুহুর্তে সারা পৃথিবী অশান্ত হবে।  সারা দুনিয়ার প্রত্যেকটি পরতে পরতে জুলুম, অত্যাচার-অনাচারে ভরে উঠবে।  অবাস্তব সকল পরিস্থিতির শিকার হবে মানুষগুলো।  বাবার হাতে মেয়ে, ভাইয়ের হাতে বোন ধর্ষিতা হওয়ার ঘটনাও ঘটবে। শিশু, বৃদ্ধরা কেউই এ নির্যাতনের হাত থেকে রক্ষা পাবে না।  কারণে-অকারণে মানুষগুলো নিহত হতে থাকবে। নানা অশ্লীলতায় সমাজ নষ্ট হবে। চারদিকে শুরু হবে দুর্ভিক্ষ ও মহামারি।

বিংশ শতাব্দি পর্যন্ত সারা দুনিয়াতে যে হারে মহাবিপর্যয়গুলো ও ফিতনা আসছে, একবিংশ শতাব্দির শুরুর দিকেই তার কয়েকগুণ বেশি ফিতনা প্রকাশ পেয়েছে বলে গোটা জাহানের মানুষগুলো হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছে। এ মাত্রা আরও দ্রুতগতিতে বেড়েই চলছে। জুলুম-নির্যাতনের পরিমাণ মানুষের ধর্যের শেষ প্রায় প্রান্তে এসে পৌঁছেছে।  এরপর প্রতীক্ষিত সে ইমাম আসবেন এবং মহাপ্রলয়ের আগ দিয়ে নতুন করে দুনিয়াতে শান্তির কেতন ওড়াবেন।

সৃষ্টিকুলের দুনিয়াতে কিয়ামতের বড় আলামত প্রকাশিত হওয়ার আগে যতগুলো ছোট আলামতের কথা হাদিসে এসেছে, অনুসন্ধানমতে তার ৯০% আলামতই আমাদের সমাজ ব্যবস্থায় হাজির হয়েছে।  এখন  যে হারে ফিতনা ছড়াচ্ছে; আল্লাহই ভালো জানেন কখন যে কি ঘটে যায়।

সার্বিক পরিস্থিতিতে এখনকার সময়টি পৃথিবীর ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়ংকর ও মর্মাহত। এমন একটি সময়ে মানুষের জান-মাল এবং ইমান ও আমল টিকিয়ে রাখা দুষ্কর হয়ে পড়েছে। পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছে, ইমানওয়ালা ব্যক্তিদের গুহায় বসবাস করতে হবে। অসৎ ও ভন্ড আলেমেরা দুনিয়ার বিনিময়ে আখিরাত বিক্রি করে দেবে। এর কারণে তারা নিজেরাও ধ্বংস হবে এবং তাদের অনুসারীদেরকেও ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে ঠেলে দিবে।
এমন যেকোনো পরিস্থিতি থেকে আল্লাহ আমাদের সকলকে হিফাজত করুন।