অসহায় কৃষকের বোরো ধান কেটে ঘরে তুলে দিল মহাদেবপুর ছাত্রলীগ 

অসহায় কৃষকের বোরো ধান কেটে ঘরে তুলে দিল মহাদেবপুর ছাত্রলীগ 

মহাদেবপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি: করোনা পরিস্থতিতে স্থবির হয়ে পড়েছে পুরো দেশ। থেমে গেছে জনজীবন। কিন্ত থেকে নেই সময়। সময়ের চাকা ঘুরতে ঘুরতে এসে পড়েছে ইরি- বোরো ধান কাটার সময়। কিন্তু করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে মানুষ গৃহবন্দী হয়ে পড়ায় দেখা দিয়েছে ধান কাটার শ্রমিক সংকট। বিপাকে পড়েছেন কৃষকরা। এমনই এক পরিস্থিতিতে করোনা ভয়কে উপেক্ষা করে কৃষকের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন মহাদেবপুর উপজেলা ও জাহাঙ্গীরপুর কলেজ শাখা ছাত্রলীগ। ৭ মে বৃহস্পতিবার উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রাজু আহম্মেদ নেতৃত্বে নওগাঁর মহাদেবপুরে কৃষকের ধান কাটা ও মাড়াইয়ের দায়িত্ব নিলেন ছাত্রলীগ। উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রাজু আহম্মেদ কৃষকদের পাকা ধান কাটা ও মাড়াই করে ঘরে তোলার ঘোষনা দিয়ে প্রান্তিক চাষীদের এ ছাত্রলীগ নেতার সঙ্গে ধান কাটা ও মাড়াইয়ের লক্ষ্যে যোগাযোগ করতে বলা হয়। সেই সুত্র ধরে উপজেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে খোশালপুর গ্রামের কৃষক আফজাল হোসেনের দেড় বিঘা জমির বোরো ধান কাটা ও মাড়াই করে বাড়ি পৌঁছে দিয়েছেন। এ সময় উপজেলা উপ সহকারী কৃষি অফিসার মকিম উদ্দিন, মামুনুর রশীদ, ছাত্রলীগ নেতা পার্থ সারথী, রাজু আহম্মেদ, মেহেদি হাসান মিঠু, আহসান হাবীব, মাহবুব আলমসহ ছাত্রলীগের অর্ধশত নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন। উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রাজু আহম্মেদ, জানান, আফজাল হোসেনের ছাড়াও এলাকায় আরো যেসকল অসহায় কৃষক ধান কাটতে পারছেন না আমাদের জানালে পর্যায়ক্রমে তাদের ধানও কেটে দেওয়া হবে। এছাড়াও এলাকায় করোনায় আক্রান্ত লক ডাউনে থাকা পরিবারের জমির ধানও কেটে দেয়া হবে। এ বিষয়ে মহাদেবপুর উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবীদ অরুন কুমার রায় জানান, মহামারী করোনা ভাইরাসে শ্রমিক সংকটের কারণে এলাকার গরীব কৃষকরা ধান কাটতে যখন হিমশীম খাচ্ছেন। তখন মহাদেবপুর উপজেলা ছাত্রলীগের এ মহতী উদ্যোগকে স্বাগত জানায়। তারা গরীব কৃষকের ধান কেটে মাড়াই করে বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছে দিচ্ছে।