তথ্যপ্রযুক্তিতে ঈর্ষণীয় সাফল্য

তথ্যপ্রযুক্তিতে ঈর্ষণীয় সাফল্য

নিউজ ডেস্ক: মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার আউটশাহী গ্রামের আসলাম ঢালী গত শুক্রবার সকালে ঢাকায় থাকা নাতনি আরিশার সঙ্গে ভিডিওকলে কথা বলছিলেন। এ সময় আক্ষেপ করে তিনি বলেন, ‘আঃ এখন প্রযুক্তি সবকিছু কত সহজ করে দিয়েছে। যখন বিদেশে ছিলাম ভিডিওকল তো দূরের কথা, টেলিফোনেও কথা বলতে পারতাম না। দেশে একটা চিঠি পাঠাতেও অনেক সমস্যা হতো।’ ১৯৮৮ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত সৌদি আরবে প্রবাসজীবন কাটিয়েছেন তিনি। জানালেন, শুরুর দিকে পরিবারের সদস্যদের খোঁজখবর নিতে চিঠিই ছিল একমাত্র ভরসা। পরে বছরে দু-এক বার জেলা শহরে থাকা এক আত্মীয়ের বাসায় টেলিফোনে কথা বলার সুযোগ হতো। পাশের বলই গ্রামের আমেনা বেগমও অনেক খুশি শুধু তথ্যপ্রযুক্তির সুবিধায়। ফ্রান্সপ্রবাসী দুই ছেলের পাঠানো টাকা পেয়ে যান নিজের মোবাইল ফোনেই। প্রতিদিনই ছেলেদের সঙ্গে কথা বলেন ভিডিওকলে।

এ তো গেল টেলিযোগাযোগব্যবস্থার গল্প। শুধু এ খাতই নয়। ১৯৭১ সালে দেশ স্বাধীন হওয়ার পর থেকে গত ৫০ বছরে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে ব্যাপক সাফল্য অর্জন করেছে দেশ। মহাকাশে বাংলাদেশ উৎক্ষেপণ করেছে নিজস্ব স্যাটেলাইট। দেশের বেসরকারি টেলিভিশনগুলো নিজ দেশের বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের মাধ্যমে চালাচ্ছে নিজেদের সম্প্রচার কার্যক্রম। বেশ কয়েকটি ব্যাংকের এটিএম বুথ চলছে দেশীয় স্যাটেলাইটের মাধ্যমে। বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট রাষ্ট্রীয় কোষাগারের টাকা বাঁচিয়ে এখন আয়ও করছে। গ্লোবাল সফটওয়্যার ও অ্যাপ মার্কেটেও বাংলাদেশের সাফল্য ঈর্ষণীয়। চলতি বছরের মধ্যে এ খাত থেকে প্রায় ৫০০ কোটি ডলার আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এদিকে ব্যাংকিং-ব্যবস্থার ধরন পাল্টে দিয়েছে অনলাইন ব্যাংকিং। মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ব্যাংককে নিয়ে গেছে ঘরে ঘরে। ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ সাইটে নিজেদের পেজ তৈরি করে ব্যবসা করছেন তরুণ প্রজন্মের লাখ লাখ উদ্যোক্তা। দ্রুতগতির ইন্টারনেটের সুবিধায় বড় বাজার তৈরি করেছে ই-কমার্স খাতও।

অন্যদিকে দাফতরিক কাজেও ডিজিটাল বাংলাদেশের অনেক সুবিধা ভোগ করছেন নাগরিকরা। পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্স, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন, জমির পর্চাসহ অনেক সেবা এখন মিলছে অনলাইনে। এসব কাজে কারিগরি সহায়তা দিচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এক্সেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রকল্প। মোবাইলের থ্রি-জি, ফোর-জি নেটওয়ার্ক বদলে দিয়েছে ইন্টারনেট ব্যবহারের অভিজ্ঞতা। গ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চলে পৌঁছে গেছে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা। দ্রুতগতির ইন্টারনেটের ফলে তরুণ প্রজন্ম ঘরে বসেই আয় করার সুযোগ পাচ্ছে। ফ্রিল্যান্সিং ঘোচাচ্ছে বেকারত্বের অভিশাপ। ইন্টারনেটের সুবিধা নিয়ে ডিজিটাল হয়েছে বিচার বিভাগও।