January 20, 2019 12:43 pm
Breaking News
Home / রাজনীতি / দুদু’র দেশ দখলের হুমকি: গণতন্ত্রের স্বার্থে সরকারকে ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের

দুদু’র দেশ দখলের হুমকি: গণতন্ত্রের স্বার্থে সরকারকে ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের

নিউজ ডেস্ক: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পূর্বেই অসাংবিধানিক উপায়ে দেশ দখল করে আওয়ামী লীগ সরকারের উপর কঠিন প্রতিশোধ নেওয়ার কুপরিকল্পনা করছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। তারই ধারাবাহিকতায় ৫ নভেম্বর রাজধানীতে অনুষ্ঠিত একটি আলোচনা সভায় রাষ্ট্রবিরোধী ষড়যন্ত্রের কথা ফাঁস করে দিয়েছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু। ৭ নভেম্বর রাষ্ট্র ক্ষমতা দখল করে ইচ্ছেমতো দেশ পরিচালনা করারও আভাস দিয়েছেন বিএনপির এই নেতা।

দুদুর মতো সিনিয়র একজন নেতা কিভাবে নির্বাচনের পূর্বে এমন উস্কানিমূলক বক্তব্য দেন সেটি নিয়েও রাজনৈতিক মহলে তোলপাড় শুরু হয়েছে। ভোটের রাজনীতিতে নিশ্চিত পরাজয় জেনে ঐক্যফ্রন্ট তৃতীয় পক্ষের সহযোগিতায় রাষ্ট্র ক্ষমতা দখল করতেই এমন সব ভয়ংকর ষড়যন্ত্র করছে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বিনষ্ট করতে দুদুর বক্তব্যকে রাষ্ট্রবিরোধী এবং উস্কানিমূলক দাবি করে অচিরেই তাকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার দাবিও জানিয়েছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে জানা যায়, ৫ নভেম্বর বিএনপি নেতা দুদু একটি অনুষ্ঠানে দাবি করেন যে, ৭ নভেম্বরের পর দেশ পরিচালনা করবে বিএনপি পরিচালিত ঐক্যফ্রন্ট। তিনি বলেন, দেশ কীভাবে চলবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট সেটা নির্ধারণ করবে। গণতন্ত্র কীভাবে ফিরবে তাও নির্ধারণ করবে ঐক্যফ্রন্ট। জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচিত হলে বর্তমান সরকারকে আসামির কাঁঠগড়ায় দাঁড় করানোরও আভাস দেন দুদু।

বিএনপি নেতা দুদু অতিউৎসাহী হয়ে ঐক্যফ্রন্টের ষড়যন্ত্র ফাঁস করে দিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক ড. আনোয়ার হোসেন। তিনি বলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট যে তৃতীয় পক্ষের সমর্থনে গঠিত হয়েছে সেটি প্রমাণ করলেন বিএনপি নেতা দুদু। সরকার যেখানে সংলাপের আয়োজন করে সকল রাজনৈতিক দলের মতামত নিয়ে একটি সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন আয়োজন করার চেষ্টা করছে, সেই সময়ে দুদুর এমন রহস্যময় ষড়যন্ত্রের আভাস রাজনীতিতে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করবে। দুদুর এমন বক্তব্য গণতন্ত্রের জন্য অশনি সংকেত। নির্বাচনের পূর্বে কেউ যাতে দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করে বাংলাদেশকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিতর্কিত করতে না পারে সে বিষয়ে সরকারকে সজাগ থাকতে হবে। দেশের উন্নয়ন, গণতান্ত্রিক রাজনীতির ভবিষ্যৎ নির্ভর করবে নির্বাচনের উপর। তাই নির্বাচনের পূর্বে উস্কানিমূলক বক্তব্য দেওয়ার অপরাধে দুদুকে আইনের আওতায় আনা উচিত বলে আমি মনে করি।

এ বিষয়ে স্থানীয় সরকার বিশেষজ্ঞ ড. তোফায়েল আহমেদ বলেন, নির্বাচনের পূর্বে সরকারকে সর্ব্বোচ্চ সতর্ক থাকতে হবে। নির্বাচন বানচাল করতে একাধিক মহল সক্রিয় রয়েছে। বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে অব্যাহত রাখতে হলে সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে গণতান্ত্রিক রাজনীতির চর্চা জরুরি। সুতরাং গণতন্ত্র ও উন্নয়নের স্বার্থে বিশেষ করে ষোল কোটি মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করতে হলে সরকারকে নির্বাচন আয়োজন করে জনগণের মতামতকে প্রাধান্য দিতে হবে। দুদু যা বলেছেন তা গণতন্ত্রের জন্য হুমকিস্বরূপ। পাশাপাশি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোন ব্যক্তি বা গোষ্ঠী যাতে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে সেদিকেও সরকারকে বিশেষ দৃষ্টি দিতে হবে।

About BTB News

Check Also

মির্জা ফখরুলকে বিতাড়িত করে মিন্টুকে মহাসচিব বানাতে লবিং শুরু!

নিউজ ডেস্ক: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অভাবনীয় পরাজয়ে বিএনপির নেতৃত্ব দেখা দিয়েছে হতাশা। দলের ভেতর …

ড. কামালের নীতি বাক্য এড়িয়ে প্রতিরোধের রাজনীতিতে ফিরতে চায় ২০ দলীয় জোট

নিউজ ডেস্ক: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অকল্পনীয় পরাজয়ের পর বিএনপির নেতৃত্ব পরিবর্তন এবং ২০ দলীয় …

ড. কামালের কথায় ক্ষুব্ধ খালেদা জিয়া, ভেঙে যাচ্ছে ঐক্যফ্রন্ট

নিউজ ডেস্ক: রাজধানীর আরামবাগে শনিবার (১২ই জানুয়ারি) বিকেলে গণফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির এক সভায় বিএনপিকে জামায়াত …

ভুঁইফোড় শ্রমিক সংগঠনের অন্তরালে আন্দোলনকে হাতিয়ার বানাতে তৎপর বিএনপি-জামায়াত চক্র

নিউজ ডেস্ক: ৩০ জানুয়ারি ভূমিধ্বস বিজয়ের পর আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করার পরপরই রাজধানীর উত্তরায় …

দোষারোপ খেলায় মত্ত বিএনপি; পরাজয়ে দেশ ও বিদেশে ক্ষতিগ্রস্ত বিএনপি

নিউজ ডেস্ক: একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিপর্যয়ের নেপথ্যে নিজেদের ভুল ও দুর্বলতা নিয়ে নানামুখী হিসাব-নিকাশ কষেও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *