August 20, 2018 12:21 pm
Breaking News
Home / স্বাস্থ্য / ম্যালেরিয়ার চিকিৎসায় বড় অগ্রগতি

ম্যালেরিয়ার চিকিৎসায় বড় অগ্রগতি

ডেক্স: বর্তমানে রোগের ক্ষেত্রে আতঙ্কের নাম হচ্ছে ম্যালেরিয়া। ম্যালেরিয়া ছড়ায় মশাবাহিত একরকম পরজীবী জীবাণুর মাধ্যমে। এ রোগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। অনেক বছর ধরেই বিশ্বব্যাপী চিকিৎসকরা ম্যালেরিয়া রোগের চিকিৎসার ক্ষেত্রে ওষুধ তৈরির চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। সেই প্রচেষ্টারই বড় ধরনের অগ্রগতির ইঙ্গিত দিয়েছেন চিকিৎসকরা। আর এই খবরের বিস্তারিত তুলে ধরেছে বিবিসি বাংলা।

খবরে বলা হয়, ৬০ বছরের মধ্যে এই প্রথম ট্যাফেনোকুইন নামের এক ধরনের একটি ট্যাবলেটকে ম্যালেরিয়ায় চিকিৎসায় ব্যবহারের জন্য সবুজ সংকেত দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

আর এই ওষুধটি বিশেষভাবে কাজ করবে একবার ম্যালেরিয়া হওয়ার পর শরীরে তার জীবাণু আবার জেগে ওঠা ঠেকাতে।

বিশ্বে এ ধরনের ম্যালেরিয়াতে প্রতিবছর আক্রান্ত হন প্রায় ৮৫ লাখ মানুষ। এই ধরনের ম্যালেরিয়াকে একটি বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। কারণ পুনরায় জাগ্রত হবার আগে লিভারের মধ্যে এটি বহু বছর ধরে থেকে যেতে পারে।

বিজ্ঞানীরা এখন এর চিকিৎসায় ট্যাফেনোকুইন কেই বড় অর্জন হিসেবে বিবেচনা করছেন।

বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশের ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা এখন বিবেচনা করে দেখবে তাদের দেশের মানুষের জন্য ওষুধটি দেয়া যায় কি না।

পুনরায় জেগে ওঠতে পারে এমন ম্যালেরিয়ার জন্য সবচেয়ে ঝুঁকিতে থাকে শিশুরা। এবং মশার কামড়ের মাধ্যমে এটি একজন থেকে অন্যজনের মধ্যে সংক্রমিত হয়ে থাকে।

এখন যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) ট্যাফেনোকুইনকে অনুমোদন দিয়েছে। বলা হচ্ছে এটি লিভারে লুকিয়ে থাকা ম্যালেরিয়ার জীবাণু ধ্বংস করে আবারো ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হওয়া থেকে ঠেকাবে।

একই সাথে কেউ ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হলে অন্য ওষুধের সাথেও এটি সেবন করা যাবে। তবে বিশেষজ্ঞরা সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন ম্যালেরিয়া চিকিৎসা ওষুধ কোর্স সেবন করতে হবে।

বিশেষ সতর্কতা

এফডিএ জানায়, নতুন এই ওষুধটি খুবই কার্যকরী এবং ব্যবহারের জন্য অনুমতি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে এর কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে যা সম্পর্কে সচেতন থাকা জরুরি। যেমন এনজাইম সমস্যায় ভুগছেন এমন কারো এই ওষুধ সেবন করা উচিত নয় বলে মনে করছেন তারা।

আবার মানসিক অসুস্থতায় ভুগছেন তেমন কারও জন্য বেশি মাত্রায় এই ওষুধ হিতে বিপরীত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

যদিও এসব সতর্কতার পরেও সবাই আশা করছেন অন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার সাথে এই ওষুধটি ম্যালেরিয়া চিকিৎসায় কার‌্যকরী ভূমিকা রাখবে।

About BTB News

Check Also

স্বাস্থ্যসেবায় ভারতের উপর বাংলাদেশ : ল্যানসেট পত্রিকার জরিপ

বিটিবি নিউজ ডেক্স: গত বছরের তুলনায় স্বাস্থ্যসেবার মানের দিক দিয়ে ভারতের চেয়ে এখনও এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। …

কারণ ছাড়া সিজার করলে প্রতিষ্ঠান বন্ধ: প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক

বিটিবি নিউজ ডেক্স: অপ্রয়োজনে কোনো গর্ভবতী মায়ের সিজারের ঘটনা প্রমাণিত হলে অভিযুক্ত প্রাইভেট হাসপাতালটি বন্ধ …

স্বাস্থ্যসেবার মানের দিক দিয়ে ভারতের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ

বিটিবি নিউজ ডেক্স: স্বাস্থ্যসেবার মানের দিক দিয়ে ভারতের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। গত বছরের তুলনায় র‌্যাটিংয়ে …

ফরমালিন ও ভেজাল খাবারের ভিড়ে এসব আমরা কি খাচ্ছি?: আমাদের কার দায় কতটুকু

বিটিবি নিউজ রিপোর্ট: এক সময় দুধে পানি মিশিয়ে বিক্রি করাই ছিল চরম অপরাধ। পানি মেশানো দুধকেই …

নওগাঁয় ৩০১টি কমিউনিটি ক্লিনিকে ৬ মাসে ১২ লাখ ১৫ হাজার ৯শ জনকে চিকিৎসা সেবা প্রদান

স্বাস্থ্য খাতে ডিজিটাল বাংলাদেশে আরো একধাপ এগিয়ে নওগাঁয় ৩০১টি কমিউনিটি ক্লিনিকে ৬ মাসে ১২ লাখ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *