September 22, 2018 11:55 am
Breaking News
Home / বিটিবি নিউজ ভিডিও / যোগ্যতার মূল্যায়ন করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

যোগ্যতার মূল্যায়ন করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

বিটিবি নিউজ ডেক্স: গুণীজনকে সম্মান দিতে জানেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা। বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক সম্পাদক গাজী মাজহারুল আনোয়ারের হাতে পুরস্কার তুলে দিয়ে তিনি সেই সত্যতা আবারও প্রমাণ করলেন। প্রসঙ্গত, ৮ জুলাই সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অভিনেতা ও কলাকুশলীদের মধ্যে ২০১৬ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে শ্রেষ্ঠ গীতিকার হিসেবে পুরস্কার পেয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক সম্পাদক গাজী মাজহারুল আনোয়ার। শেখ হাসিনার হাত থেকে বিএনপি নেতার এই পুরস্কার পাওয়া নিয়ে ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর উপসহকারী প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন। তার পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে যিনি পুরস্কার নিচ্ছেন তিনি দেশ বরেণ্য সংগীতজ্ঞ, বিখ্যাত ‘জয় বাংলা বাংলার জয়’গানের গীতিকার গাজী মাজহারুল আনোয়ার। এখন বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত, কেন্দ্রীয় কমিটির সাংস্কৃতিক সম্পাদক। বিএনপির শাসনামল উল্লেখ করে তিনি লিখেছেন, অপরদিকে বিএনপি জামায়াত সরকারের সময় আওয়ামী ঘরনার প্রগতিশীল শিল্পী সাহিত্যিকদের বিটিভি-বেতারসহ সরকারি সকল অনুষ্ঠানে নিষেধাজ্ঞা ছিল। এইখানেই বঙ্গবন্ধু কন্যার অসাধারণত্ব। ভিন্ন দলের বলে নিষিদ্ধ নয় বরং যোগ্যতার মূল্যায়ন করেছেন। শুধু তাই নয় বিএনপিপন্থী অনেক শিল্পী সাহিত্যিককে চিকিৎসার জন্য অনেক আর্থিক অনুদানও দিয়েছেন। এইখানেই তিনি অন্যদের থেকে মানবিক, উদার এবং আলাদা।’ অথচ বিএনপির শাসনামলে আওয়ামী মনোভাবাপন্ন শিল্পী-কুশলীদের মূল্যায়ন তো দূরের কথা, তাদের অগ্রাহ্যের পাশাপাশি মামলা-হামলাসহ উদ্দেশ্যমূলকভাবে বিভিন্ন ঝামেলায় জড়ানো হতো। শুধু আওয়ামী শিল্পী-কুশলী নয় বরং সমগ্র শিল্পী-কুশলী সমাজ তখন বঞ্চিত ছিলো। এমনকি উদ্দেশ্যমূলকভাবে তাদের হয়রানির পাশাপাশি তাদের উপর উগ্রবাদীদের হামলায় নিশ্চুপ ছিলো তারা। অনেক ক্ষেত্রে উগ্রবাদীদের হামলায় তাদেরই উস্কানি ছিলো। রমনা বটমূলে শিল্পী সাহিত্যিকদের উপর হামলার কথাও ভুলেনি এদেশের সাধারণ জনগণ ও শিল্পী সমাজ। এসব দিক দিয়ে একেবারে ব্যতিক্রম বর্তমান সরকার ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। যোগ্য হলে বিরোধী মতের মানুষকেও সম্মান দেয়া যায়। গাজী মাজহারুল আনোয়ারের হাতে প্রধানমন্ত্রীর পুরস্কার তুলে দেয়া সেই দৃষ্টান্তেরই একটি মহৎ উদাহরণ। প্রধানমন্ত্রীর এই উদার মনোভাবের প্রশংসা করে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের অনেকেই বলছেন, অন্য দলের কর্মী বলে প্রধানমন্ত্রী তাকে তার যোগ্য সম্মান দিতে কুণ্ঠাবোধ করেননি বরং হাসিমুখে তার মূল্যায়ন করেছেন- যা সত্যিই প্রশংসনীয়।

About BTB News

Check Also

সিলেটে আরিফ জামায়াত বিরোধ শুরু হয় ‘উইমেন্স মেডিকেল কলেজ’ ভাঙা নিয়ে

সিলেট বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী বদরুজ্জামান সেলিম প্রার্থিতা প্রত্যাহার করলেও কিছুতেই জামায়াতকে নিয়ে দুশ্চিন্তা কাটছে না …

বহরমপুর এলাকায় রেল লাইনের পাশের বস্তিবাসীর বসত বাড়ি বস্তি উচ্ছেদ

 

জোটের হিসাবনিকাশ নির্বাচনী তৎপরতার গতিবিধি

 

রাসিক নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে জঙ্গি হামলার নীল নকশা

 

বুলবুলের নির্বাচনী অপপ্রচারের শিকার কোমলমতি শিশুরা

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *