পুত্রের জামিন করাতে এসে পিতা শ্রীঘরে

পুত্রের জামিন করাতে এসে পিতা শ্রীঘরে

 স্টাফ রিপোর্টার: নওগাঁয় মাদকের মামলায় পুত্র লিটন ইসলামকে জামিন করাতে এসে জাল চিকিৎসা সনদ দাখিলের জন্য পিতা রশিদুল ইসলামকে আটক করে শ্রীঘরে প্রেরণের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।  গত বৃহস্পবিবার দুপুরে নওগাঁর অতিরিক্ত দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মোঃ মেহেদী হাসান তালুকদার রশিদুল ইসলামকে আটকের ওই আদেশ দেন।

জানা গেছে, নওগাঁর পোরশা থানার মাদকের একটি মামলায় পুত্র মো: লিটন ইলামকে জামিন করাতে এসে অতিরিক্ত দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মো: মেহেদী হাসান তালুকদার এর আদেশে আটক হলেন পিতা রশিদুল ইসলাম। ওই রশিদুল ইসলাম ঠাকুরগাঁও জেলার সদর থানার কালিকগাঁও গ্রামের মৃত আছউদ্দীনের ছেলে বলে জানা গেছে।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, রশিদুলের পুত্র লিটন ইসলামকে গত ২০২০ সালের ৮ আগষ্ট সাড়ে সাত লক্ষ টাকা মূল্যমানের ৭৫ গ্রাম হেরোইনসহ পোরশা থানার জালুয়া পাড়া নামক স্থানে চাঁপাইনবাবগঞ্জ হতে সরাইগাছীগামী পাকা রাস্তার ‍উপর একটি বাস তল্লাশী করে হাতে নাতে আটক করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের একটি গোপন টহল দলের সদস্যরা। মাদক মামলাটি অতিরিক্ত দায়রা জজ প্রথম আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। এদিকে চলতি বছরের ২৩ মার্চ আসামী লিটনের মা হার্ট এ্যাটাকে আক্রান্ত দাবী করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের জুনিয়র কনসালটেন্ট ডাক্তার মো: হাবিব-ই-রসুলের একটি চিকিৎসা সনদ আদালেতে দাখিল করে তার পক্ষে জানিনের প্রার্থনা করেন আইনজীবি শুভ্র সাহা।

আদালতে শুভ্র সাহা বলেন, আসামীর মা মরণাপন্ন তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজে স্থানান্তরের জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছে। বিষয়টি স্পর্শকাতর দাবী করে মাকে দেখার জন্য আসামী লিটনের জামিন চেয়ে আদালতের অনুকম্পা প্রার্থণা করেন।

অতিরিক্ত দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মেহেদী হাসান তালুকদার আদালত থেকে নেমে ঠাকুরগাঁও সিভিল সার্জনের টেলিফোন নম্বরে যোগাযোগ করে ডাক্তার হাবিব-ই-রসুলকে মোবাইল ফোনের হোয়াটস এ্যাপের মাধ্যমে আদালতে দাখিল করা ওই মেডিকেল সনদটি দেখানো হলে তিনি জানান যে, চিকিৎসা সনদটি তার ইস্যুকৃত না। এর প্রেক্ষিতে আইনজীবি শুভ্র সাহাকে জাল জালিয়াতিমূলক মেডিকেল সনদ দাখিলের জন্য কারণ দর্শাতে বলা হয়। আইনজীবি গত বৃহস্পতিবার আসামী লিটনের বাবাসহ আদালতে মূল চিকিৎসা সনদ নিয়ে হাজির হলে শুনানি অন্তে লিটনের বাবাকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন আদালত। একই সঙ্গে জাল চিকিৎসা সনদ দাখিলের জন্য পিতা রশিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আজ রবিবার নওগাঁ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটকে নির্দেশ দেন বিচারক মেহেদী হাসান তালুকদার।